Real Time True News

ভুয়া ডাক্তারসহ চারজনকে সাজা

বিএনএ,ঢাকা : রাজধানীর মতিঝিল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের এক ভুয়া চিকিৎসকসহ চারজনকে জেল-জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।ভুয়া চিকিৎসকের সন্ধান ও নানা অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে র‌ রোববার(২৮জুন) দুপুর সোয়া ১২টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত হাসপাতালটিতে অভিযান চালায় র‌্যাব। এতে নেতৃত্ব দেন র‌্যাব সদরদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

তিনি বলেন, করোনাকালে সবার জীবন যখন ঝুঁকির মুখে। এ অবস্থায় ভুয়া চিকিৎসকের অপতৎপরতা নজরদারি করছে গোয়েন্দা সদস্যরা। ভুয়া চিকিৎসক থাকাসহ বেশ কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে মতিঝিলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা কর হয়। সে সময় মিজানুর রহমান নামে একজন ভুয়া চিকিৎসককে আটক করা হয়। পরে তাকে ২ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এছাড়াও হাসপাতালটির ফার্মেসিতে অনুমোদনহীন ওষুধ থাকায় দুজনকে শাস্তি দেয়া হয়েছে।

র‌্যাব জানায়, মতিঝিল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের মিজানুর রহমান নামে একজন ডাক্তার ১২ বছর ধরে চিকিৎসা দিয়ে আসছেন। তিনি ইউনানির সাময়িক অনুমোদন নিয়েই দিয়ে আসছিলেন অ্যালোপ্যাথিক চিকিৎসা। কিন্তু ইউনানি নীতিমালা অনুযায়ী এটা করা যায় না। এছাড়াও তিনি প্রেসকিপশনে নিজেকে ডাক্তার হিসেবে উল্লেখ করে আসছিলেন। শুধু তাই নয় হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ, এমফিল ড্রিগ্রির বিষয়ও তুলে ধরছিলেন। ইউনানি চিকিৎসক হয়েও অ্যালোপ্যাথিক ওষুধ ও বিভিন্ন রোগের জন্য পরীক্ষা দিয়ে আসছিলেন। এ অপরাধে তাকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়াও হাসপাতালের অ্যাসিসটেন্ট সুপারভাইজার মো. হাসিনুর রহমানকে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এছাড়াও ইসালামী ব্যাংক হাসপাতালের ফার্মেসিতে অপারেশন থিয়েটারে ব্যবহৃত ইনজেকশন (টিএআর) সার্জিক্যাল আইটেম এবং ওষুধ রাখার দায়ে মো শফিউল ইসলাম ও আব্দুল জলিল নামে দুজনের প্রত্যেককে ৫ লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম জেল দেয়া হয়েছে।

জেবি,আরকেসি